অনলাইন ইনকামের চোদ্দগুষ্টির একাদশ পর্ব

আসসালামু আলাইকুম,
আসা করি ভালো আছেন,

প্রচন্ড গরমে জীবন যখন চরমে, সময় করে তাই আর লিখা হয়ে উঠেনি। কিন্তু কী আর করা 😴😴। আপনাদের গরম হয়তো কমাতে পারবো না ; তবে আজ চেষ্টা করবো আপওয়ার্কের কিছু টিপস দিয়ে আপনাদের তৃষ্ণার্ত মনকে কিছুটা প্রশান্তি দিতে 😇😇😇
আজ আপনাদের জ্বালাতে আমি হাজির হয়েছি অনলাইনের ইনকামের চোদ্দগুষ্টি এর একাদশ পর্ব নিয়ে 😁😁😁। আজ আমি আপনাদের জানাবো কী ভাবে আপনি একটি সুন্দর পোর্টফোলিও বানাতে পারেন যা আপনার কাজ পাওয়ার সম্ভাবনা বাড়াতে সাহায্য করে 😗😗
যারা আগের পর্বগুলো পড়েননি তাদেরকে অনুরোধ করবো সেসব ধারাবাহিকভাবে শেষ করে নিতে। তাহলে ব্যাপারগুলো সহজ হবে 😎😎

সংখ্যা হিসাবে ১১ খুবই মজার সংখ্যা। যেমন ১/১১ একটি চিরন্তন সত্যবাদী সংখ্যা। আর ২/১১ লোভী সংখ্যা। কারনটা আমি বলবো না। আপনারাই বের করুন 🤣😂😂

যাক মুল কথায় ফিরে যাই। আজকের লিখাটা অনেকটাই বড়। তাই ধৈর্য্য নিয়ে পড়তে হবে। আজকের বিষয় পোর্টফোলিও নিয়ে।মনে রাখবেন আপনার পোর্টফোলিও ক্লায়েন্টকে আপনার প্রতি আকৃষ্ট করতে খুবই প্রয়োজনীয় ভুমিকা রাখে।এটি প্রমানিত যে, আপনার পুর্বের আর বর্তমানের কাজগুলোকে ক্লায়েন্টের সামনে তুলে ধরতে একটা ভালো পোর্টফোলিওর বিকল্প নেই। অনেক ক্লায়েন্ট আপনার পোর্টফোলিও দেখেই আপনাকে কাজ দিয়ে দিবে 😄😄

আপনি কেবল আপনার কাজের স্ক্রিনশট এবং ফাইলগুলো আপলোড করতে পারবেন লিংকগুলোও দিয়া যায়। তবে মনে রাখবেন পোর্টফোলিও এমন ভাবে সাজাবেন যেন ক্লায়েন্ট সহজেই আকৃষ্ট হয়। আপনার সাথে কাজ শুরুর আগেই যেন আপনার প্রতি মানষিক সন্তুষ্টি তৈরি হয়। কারন বাংলায় একটি প্রবাদ আছে “আগে দর্শনধারী, পরে গুণবিচারী।” 😁😁😁

যাহোক অনেক কথা বলে ফেললাম। এখন আপনাদের কিছু টিপস দিচ্ছি যা আপনাদের পোর্টফোলিওকে আরো আকর্ষণীয় করে তুলতে সাহায্য করবে।🤔🤔

প্রথমত আপনার প্রতিটি কাজের জন্য পৃথক পোর্টফোলিও করবেন। আপনি হয়তো একাধিক কাজে স্কীলফুল হতে পারেন। আর চাচ্ছেন প্রতিটি কাজকেই ক্লায়েন্টের কাছে ফোকাস করতে সে ক্ষেত্রেও প্রতিটা কাজের আলাদা স্ক্রিনশট বা ফাইল দিয়ে পোর্টফোলিও বানাবেন 🤔🤔🤔
বুঝতে সহজ করার জন্য একটি উদাহরন দেই। মনে করুন আপনি একজন গ্রাফিক্স ডিজাইনার। আপনি লোগো বানাতে, পোস্টার কিংবা ফ্লায়ার বানাতে এক্সপার্ট। আবার ফটো ব্যাকগ্রাউন্ড রিমুভ এবং ম্যানিপুলেশনেও আপনি দক্ষ। তাহলে এসব কাজের ৬ থেকে ৮ টি আইটেমের কাজের স্ক্রিনশট আপলোড করুন। লক্ষ্য রাখতে হবে প্রতিটি জানি আলাদাভাবে শ্রেণীবদ্ধ থাকে এবং প্রতিটির আলাদা ডেসক্রিপশন থাকে 🤠🤠

এখন দ্বিতীয়ত যে টিপসটা দিবো এটা সবথেকে গুরুত্বপূর্ণ। প্রতিটি পোর্টফোলিও এর জন্য সুন্দর ডিসক্রিপশন অবশ্যই থাকা লাগবেই। কী লিখবেন 🤔🤔? আপনার প্রজেক্টগুলো কী ভাবে করছিলেন। তার একটা সংক্ষিপ্ত কিন্তু আকর্ষণীয় বর্ণনা লিখবেন। আপনি কী ভাবে ক্লায়েন্টের সমস্যার সমাধান দিলেন, তার কাজটি কতটা গুরুত্বপূর্ণ ছিলো; আর আপনি কীভাবে তার প্রয়োজনীয়তা অনুভব করে কাজটি করেছেন, কতটা ডেডিকেটেড ছিলেন তার বিবরনগুলো লিখতে পারেন। তবে অবশ্যই সংক্ষিপ্তভাবে এবং অতিরঞ্জিত যেন না হয়😃😄😃

এবার আশা যাক তৃতীয়ত কী করতে পারেন সেটা নিয়া আলোচনা করতে। সর্বশেষ কাজের লিংক ও স্ক্রিনশট নিয়মিত আপনার পোর্টফোলিওতে আপলোড করবেন। এ কাজটি কতটা গুরুত্বপূর্ণ তা আপনি ভাবতে পারেন? হ্যাঁ, এ কাজটি আপনাকে বিড করে প্রজেক্ট জিততে অনেক অনেক সাহায্য করবে। অনেক ক্লায়েন্ট আপনার কাজের স্ক্রিনশট এক নজর দেখেই কাজের লিংকে ঢুকে। তারা তখন আপনার কাজের একটি ভালো ধারনা নিতে পারবে 😋😋😋

আর ও হ্যাঁ, যদি পুরাতন কাজের কোনো কিছু পরিবর্তন করেন তবে সেটারও স্ক্রিনশট আর URL লিংক কিন্তু দিতে ভুলবেন না
😃😃😄

চতুর্থত এমন কোনো পোর্টফোলিও রাখবেন না যেটা দ্বারা আপনার কাজের স্কীল প্রকাশ পায় না অথবা যে কাজগুলো ব্যাকডেটেড হয়ে গেছে। মনে রাখবেন সময়ের সাথে কাজের ধরন আর মানুষের রুচি পরিবর্তন হয়। আপনার কাজেও তার ছোঁয়া লাগতে হবে। তা না হলে টিকে থাকা কঠিন। আর যদি পোর্টফোলিও গুলো রাখতেই হয় তবে চেষ্টা করবেন কী ভাবে কাজগুলোকে সময়ের সাথে তাল মিলিয়ে আরো আকর্ষণীয় করা যায়। যদি সেটা সম্ভব না হয় তবে নতুন প্রজেক্ট যোগ করুন আর পুরাতনকে করুন বিদায়। আবেগ দিয়ে তো আর প্রোফেশনাল হওয়া যায় না 😪😪😪

আপাদত এ টিপসগুলোই মাথায় আসছে। গরমে মাথা কাজ করতে চায় না 😪😪😪

শেষ করার আগে কিছু কথা না বললেই নয়। আপনি যখন যেই প্রজেক্ট করেন না কেন ; তা সবসময় নতুন একটা চ্যালেঞ্জ 😍😍
আপনি সেটা জয় করেছেন 😘😘😘

তাই ক্লায়েন্টের কাজ শেষ করার পর তার অনুমতি নিয়ে কাজের লিংক আর স্ক্রিনশট আপনার পোর্টফোলিওতে যুক্ত করবেন 😎😎

তো এখনি আপনার পোর্টফোলিও এর দিক নজর দিন। ভাবুন, নতুন কিছু কী যুক্ত করা যায়? পিছিয়ে আছেন কেন? 🤔🤔🤔

আমার লেখায় আমি কয়েকজন অভিজ্ঞতা সম্পন্ন মানুষের মতামতকে প্রাধান্য দিয়েছি। মনে রাখবেন দিন শেষে আপনার নিজস্বতাই আপনার সাফল্যের চাবিকাঠি। সফল মানুষ ভিন্ন কিছু করে না। একই কাজ ভিন্ন উপায়ে করে 😍😍😍

আজ আর নয়। আজ চলে যাচ্ছি কিন্তু যাচ্ছি না। আগামী সংখ্যায় আবার আসবো। সেই পর্যন্ত সুস্থ থাকুন। আর যে কোনো সাহায্যের জন্য পাশেই থাকুন 😘😘😘

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here