অনলাইনে ইনকামের চৌদ্দগুষ্টি এর সপ্তম পর্ব

আসসালামু আলাইকুম,

এসে পড়লাম অনলাইনে ইনকামের চৌদ্দগুষ্টি এর সপ্তম পর্ব নিয়ে।

বিশ্বের প্রায় সবখানেই একটি কুসংস্কার বিরাজমান আছে আর সেটি হচ্ছে সাত নম্বর সংখ্যা টি কে ভাগ্যবান বলা হয় ইংরেজিতে যাকে বলা হয় লাকি সেভেন, আর সেই লাকি সেভেন নিয়ে আমাদের আজকের আয়োজন।😎😎

গতকাল বলেছিলাম আজকে আপনাদেরকে ফাইবার বিড করার টেকনিক সম্বন্ধে বলবো,
যেই কথা সেই কাজ, আজকেও যদি আপনাদের কে ঘুরিয়ে পেচিয়ে আসল কথা না শেষ করতে পেরে বিদায় নেই তাহলে বোধহয় আর রক্ষা পাবো না।😜

যারা এই লেখাটি নতুন করছেন তাদেরকে বলবো আগের লেখাগুলো পড়ে নিন তাহলে এই বিষয়টি অনেক পরিষ্কার হয়ে যাবে।

ফাইবার, সম্বন্ধে মোটামুটি সব কিছুই বলে ফেলেছি এবার আমি বলবো কিভাবে আপনারা ফাইবার এ বিড করবেন।

প্রথমত আসুন জেনে নেই বিড জিনিসটা কি ?

একেবারে সহজ ভাষায় বলছি, নিলামে যখন কোন পণ্য ওঠে তখন একেক জন একেক রকম দাম বলে বা পণ্যের দাম হাঁকায়, ঠিক একইভাবে ফাইভারে যখন একজন বায়ার তার কাজটি করার জন্য ফাইবারে বায়ার রিকুয়েস্ট রাখে তখন আপনি চাইলে সেই বায়ার রিকোয়েস্ট এর নিচে একটি অফার সেন্ড করতে পারেন যেটিকে টেকনিকাল টার্ম এ বলা হচ্ছে বিড।

কি বুঝতে কষ্ট হচ্ছে?🤷‍♀️

আচ্ছা আরো সহজ করে বলছি, ধরুন আপনি 10 জন লোকের সামনে এসে বললেন আমার একটি দোতলা বিল্ডিং আছে সে বিল্ডিং প্লাস্টার করতে হবে এখন বল কে করতে পারবে এবং কত নেবে?

মনে করুন সেখান থেকে চার থেকে পাঁচজন উঠে এসে বলল আমি 5 টাকা , অন্যজন 10 টাকা, অন্যজন 6 টাকা, অন্যজন হয়তোবা 15 টাকা চেয়ে বসে থাকল।

এখন এখানে কথা হচ্ছে যে 5 টাকা চেয়েছে সে একেবারে আনাড়ি, সে হয়তো বা আপনার সময় এবং মূল্যবান সরঞ্জাম আরও নষ্ট করতে পারে।

যে 6 টাকা চেয়েছিল সে তার আগে একটি কাজ করেছে।

যে 10 টাকা চেয়েছিল সে এর আগেও বেশ কয়েকটি কাজ করেছে এবং সুনাম আছে বেশ।

আর যে কিনা 15 টাকা চাইল সে এর আগে শতাধিক কাজ করেছে এবং তার অভিজ্ঞতা নিয়ে কোন ধরনের সন্দেহ নেই অসংখ্য মানুষ তার সম্বন্ধে ভালো বলেছে।👌

এবার কথা হচ্ছে আপনি আপনার বাজেট এবং যার উপর বেশি বিশ্বাস সৃষ্টি হয় তাকে কিন্তু কাজটি দিবেন, হয়তোবা এমনও হতে পারে 5 টাকা চাওয়ার লোকটি আপনাকে খুব ভালোভাবে বুঝিয়ে বলল সে কাজটা কিভাবে পড়বে এবং কাজটা করলে আপনার কি কি লাভ হবে।

এবং সময় ব্যাপারেও সে যথেষ্ট সমীচীন, তাহলে কিন্তু দিন শেষে মনে হতে পারে যে আপনি কাজটি তাকে দেবেন।
যদিও তার অভিজ্ঞতা নেই বললেই চলে।😊

ঠিক একই ভাবে আপনি ফাইবার বা অন্য যে কোন মার্কেটপ্লেসে আপনার কাস্টমার বা বায়ার এর কাছ থেকে কাজটি না মানতে হলে আপনাকে কনভিন্স করতে হবে যে আপনি কাজটি করতে পারবেন এবং দিন শেষে আপনাকে কাজটি সুন্দর ভাবে সম্পন্ন করে তাকে জমা দিতে হবে অবশ্যই নির্দিষ্ট সময়ে রেখার মাঝে।

এখানে একটা পদ্ধতি বলতে পারি, আপনি আপনার বায়ার ক্লায়েন্ট বা কাস্টমার যাই বলেন না কেন তাকে যদি আপনার একটি কাজের কিছু এক্সট্রা দিয়ে দেন তাহলে সে খুব খুশি হবে,
এবং সম্ভাবনা থাকবে যে এর পরের বার কাজ করানোর জন্য সে আপনাকে খুঁজবে।💕

উদাহরণস্বরূপঃ আপনি একটি বায়ারের ইমেইল লিস্টিং এর কাজ করে দিলেন সে 50 টি ইমেইল লিস্ট করতে বলল আপনি সেখান থেকে পাঁচটি ইমেইল বেশি করে দিলেন তাহলে কিন্তু সে যথেষ্ট খুশি হবে আপনার প্রতি।😊😉

আমার প্রথম কাজটি যখন করেছিলাম তখন বায়ার খুশি হয়ে আমাকে 10 ডলার এক্সট্রা টিপ দিয়েছিল, কারণ আমি তার 1 এর জায়গায় দুইটি কাজ করে দিয়েছিলাম।

এখন পর্যন্ত সেই বায়ার এর সাথে আমার ব্যক্তিগতভাবে যোগাযোগ আছে।😍😍
ও আচ্ছা একটা মজার কথা বলতে ভুলে গেছি, আমার সেই গিগ যেটা কিনা সার্চ রাঙ্কিংএ প্রথম হয়েছিল, টানা দুইদিন তৃতীয় স্থানে থাকার পর আজ সকাল থেকে আবার প্রথম স্থানে এসে পড়েছে।

মহান আল্লাহ রাব্বুল আলামিনের কাছে লাখ লাখ শুকরিয়া, আপনাদের সবার কাছে আমি দোয়া প্রার্থী।

বিড করার সময় লক্ষ্য রাখতে হবে যে বিষয়গুলো,

প্রথমত আপনি যত প্রাসঙ্গিক এবং কার্যকরী লেখা লিখে অফারটি সেন্ড করবেন ততই আপনার কাজ করার সম্ভাবনা বেড়ে যাবে,
লক্ষ্য রাখবেন লেখার জন্য খুব ছোট না হয় আবার খুব বড় না হয়।

কথার কথা আপনি একটা মানুষের লোগো বানিয়ে দিবেন সে ক্ষেত্রে কিন্তু আপনি খুব সহজেই অফার করতে পারেন যে আপনি এ পর্যন্ত কতগুলো লোগো বানিয়েছেন।

এবং সেই লোক গুলো থেকে আপনার কি রকম কাস্টমার ফিডব্যাক পেয়েছেন এবং সে চাইলে আপনি তাকে ছিল ওগুলো স্যাম্পল দেখাতে পারেন, স্যাম্পল দেখার জন্য যেন সে আপনাকে ব্যক্তিগতভাবে মেসেজ দেয়।😉😉

গোটা পঞ্চাশেক অক্ষরের লেখাটা লিখে যদি আপনি তার কিছু সেন্ড করেন আশা করি অন্তত পক্ষে স্যাম্পল দেখার জন্য হলেও সে আপনাকে মেসেজ দিবে,

আর মেসেজে আনার পরে তাকে যেভাবে হোক বুঝিয়ে সুজিয়ে তার সকল রিকোয়ারমেন্ট ফুলফিল করে কাজটি করে দেয়ার প্রতিশ্রুতি দিতে পারলে সে কিন্তু আপনাকে কাজটি দিয়ে দিবে।🤑🤑

কিছু কিছু বায়ার শুধুমাত্র সুন্দর কথার কারণে আমাকে কাজ দিয়ে দিয়েছে, সবচেয়ে বড় কথা হচ্ছে আপনাকে সামনের মানুষটি কে বোঝাতে হবে যে আপনি কাজটি করতে পারবেন।👌

তাকে যদি তার সেকাজ সম্বন্ধে কিছু তথ্য বা কিছু বুদ্ধি দেওয়া যায় তাহলে কিন্তু সে খুব সহজেই পটে যাবে।

আজকালকার ছেলেমেয়েরা গার্লফ্রেন্ড পটানোর জন্য নানা ফন্দি না করে,😒😒

সেই পরিশ্রমের যদি সিকিভাগও তারা ফাইবারে দেয় বা শুধু ফাইবার নয় যেকোনো ফ্রীল্যান্স প্ল্যাটফর্ম এনে দেয় আমি বিশ্বাস করি গার্লফ্রেন্ড যেখানে আপনার টাকা খসাবে সেখানে ফ্রিল্যান্সিং আপনাকে পকেটের টাকা ঢোকাবে।🤑

লেখা বড় হয়ে যাচ্ছে, আজ শরীরটা ভালো তো তাই বেশি করে লিখছি।

আচ্ছা এবার ফাইবারের যে কাজগুলো কখনোই করবেন না।

ফাইবারে কখনোই এমন কিছু লিখবেন না বিশেষ করে আপনার গিগ অথবা টাইটেলে যেটা কিনা ফাইবারের নীতিবিরুদ্ধ,
যেমন আমি আপনাকে এত ফলোয়ার এনে দিব, আমি আপনাকে এত লাইক এনে দিব, অথবা ইউটিউব পেজে ভিউয়ার এনে দিবো।
আপনি সরাসরি এই কথাগুলো বলেন তাহলে খুব শীঘ্রই আপনাকে ফাইবার আপনার অ্যাকাউন্টটি রিভিউ এর জন্য বলবে,
এবং এরপরেও যদি আপনি ঠিক না করেন তাহলে আপনার একাউন্ট সাসপেন্ড করে দিবে। 😢😢

কাস্টমার সাপোর্ট এর সাথে বাজে ব্যবহার করা যাবে না, অবশ্যই যুক্তি-তর্ক দিয়ে সুন্দর করে সাবলীল ভাষায় তাকে বুঝিয়ে বলতে হবে আপনার সমস্যাটি জানো সে সমস্যাটি দ্রুত সমাধান করতে পারে।😊😊

মনে রাখবেন যে কোন সমস্যা বা যে কোন তথ্যের প্রয়োজন হলে সর্বপ্রথম আপনি আপনার ড্যাশবোর্ড থেকে রুলস এন্ড রেগুলেশন বা নিয়মাবলীগুলো সুন্দর করে পড়ে নিবেন তারপর উত্তর না পান সেক্ষেত্রে আপনি কমপ্লেইন ডিপার্টমেন্টে যাবেন। 🤔🤔

আপনি কখনোই স্পাম লিংক সেন্ড করবেন না, বা কাস্টমারের অনুমতি ছাড়া কখনই কোন ধরনের লিংক দেবেন না।😑

আরো বড় কথা হচ্ছে ইমেল বা নিজের ব্যক্তিগত তথ্য শেয়ার করার আগে খুব সাবধানে ফাইবার এই জিনিসগুলো খুব সুন্দর করে ট্র্যাক করে এবং সময়মতো আপনাকে সাসপেন্ড করে দিবে।

এক্ষেত্রে একটি পদ্ধতি আমি প্রায় সে ব্যবহার করি যে কাস্টম অফার এর ভিতর অথবা একটি টেক্সট ফাইলে লিখে সেটি এটাচ করে দেই।😂😂

যাইহোক মোটামুটি আশাকরি ফাইবার নিয়ে যা বলার ছিল বলে ফেলেছি আপনারা আর একটু ঘাটাঘাটি করলে আরও বেশি বুঝতে পারবেন, কাল পরশুর ভিতরে আপওয়ার্ক শেষ করবো তারপরে পিপল পার আওয়ার।

তারপরে অনলাইনে ফ্রিল্যান্সিংয়ের ক্ষেত্রে সবচাইতে বিখ্যাত কয়েকটি প্ল্যাটফর্ম নিয়ে আলোচনা করে চলে যাব প্যাসিভ ইনকামে আশা করতেছি ঈদের আগেই সব কিছু শেষ করে ফেলতে পারব।

পাশে থাকুন সাথে থাকুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here