shialpondit,honey,bangla blog,new blog,shial,pondit,bangla content,funny joke,bangla funny

মধু একটি পরিচিতি নাম, নানান স্থানে তার ব্যবহার। হাটে, ঘাটে, মাঠে কোথায় নেই মধু?,

কি উদাহরণ লাগবো?  বুঝছি, ওকে চলেন দেই। 

-“ জান তোমার কণ্ঠ আমার কাছে মধুর মত লাগে। ” আল্লাহ়্ ভাল জানে এই মধু কয়দিন পর তিতা হয় কেমনে?।

– “ জন্মের লগে লগে আমগো বাজান রে মধু দিয়া গলা সাফ করছি, এল্লিগা  দেহেন না মাসাল্লাহ আমাগো বাজান এর গলা ভারতের কুমার শানুর লাহান । ’’  অই বাজান এর কণ্ঠেই আবার গালি গালাজ শুনলে…

– “ মামা মালটা যা জোশ, পুরাই মধু মাম্মা”   মাম্মা এর মত অন্য কেও মাম্মার বোনরে দেখে।  

– “ মধু দিয়া এই ঔষধ টা খাবেন, গোপন সমস্যা ১৫ দিন এ শেষ। “ নিজের সমস্যা টা যে কি দিয়ে সারেন উনি। 

– বাংলাদেশে কত পোলাপাইন এর নাম যে আগে মধু রাখা হত। এখন ব্যাক ডেটেড হয়ে গেছে অবশ্য, একটা খেলা ছিল রাম, শাম, যধু, মধু। 

– বাংলায় মধু লিখে সার্চ দিলে গুগলে ২,৬৩০,০০০ রেজাল্ট আসে। 

যাই হোক, আর বোধহয় উদাহরণ দেয়া লাগবে না। আমাদের সমাজে মধু বিরাজমান নানা স্থানে,

আজ আমরা কথা বলব প্রকৃতির এক অনন্য উপহার মধু নিয়ে। 

(থাম্বনেইল /টাইটেল পিক দেখে যারা অন্য কিছু ভাবছিলেন, তাদের নিরাশ করার জন্য দুঃখিত)

কি?

মধু মৌমাছি এবং কিছু সম্পর্কিত কীটপতঙ্গ দ্বারা তৈরি একটি মিষ্টি, আঠালো খাদ্য উপাদান ।

মৌমাছি গাছ এর মিষ্টি নিঃসরণ (ফুলের অমৃত) থেকে বা অন্যান্য পোকামাকড়ের স্রাব থেকে পুনর্গঠন, এনজাইমেটিক ক্রিয়াকলাপ এবং জলীয় বাষ্পীভবন দ্বারা মধু উৎপাদন করে।

মানুষের প্রয়োজনে মধু বুনো পরিবেশ এবং চাষের মাধ্যমে সংগ্রহ করা হয়। চাষের পদ্ধতি, সংগ্রহ স্থান ইত্যাদির উপর নির্ভর করে মধুর দাম এবং গুণগত মান নির্ধারণ করা হয়। 

কেন? 

এইতো গেল মধুর পরিচিতি। এবার আসুন জানি মধুর ব্যবহার সম্পর্কে। 

মধু নানা কাজে ব্যবহার করা হয়, তবে আসুন মধুর প্রধান ৩ টি ব্যবহার আপাতত জানি। 

সুস্বাদু খাবার/ মিষ্টির পরিপুরকঃ 

সুস্বাদু খাবার বা চিনির বিকল্প হিসেবে মধু প্রাগ-ঐতিহাসিক কাল থেকে ব্যবহার হয়ে আসছে । 

ঔষধঃ যুগ যুগ ধরে মধু অত্যন্ত কার্যকরী ভাবে ঔষধি হিসেবে ব্যবহার হয়ে আসছে, দেহের নানান রোগের উত্তম উপাদেয় এবং খাদ্য সম্পূরক হিসেবে এর জুড়ি নেই। 

প্রসাধনীঃ সৌন্দর্য চর্চায় মধু বেশ শক্ত অবস্থান ধরে রেখেছে। সমগ্র বিশ্ব জুরে মধু রূপ চর্চার একটি শক্ত অবস্থান ধরে রেখেছে। 

মধু নিয়ে কিছু মজার তথ্যঃ

মধু যেমন সুস্বাদু তেমনি এর আছে নানা রকম প্রাকৃতিক গুনাবলি। আসুন মধু নিয়ে মজার তথ্য জানি। 

মধু কখনো নষ্ট  হয়নাঃ জী হ্যাঁ, খাঁটি মধু সঠিক ভাবে সংরক্ষণ করলে তার মেয়াদ আজীবন। 

৮০% চিনিঃ মধুর ৮০% চিনি আর ২০% পানি। 

মৌমাছিঃ ১ পাউন্ড মধু উৎপাদন করতে প্রায় ৭৬৮ টি মৌমাছির পুরো জীবনকাল ব্যয় হয়, এর জন্য তাদের প্রায় ২০ লাখ ফুল হতে মধু সংগ্রহ করতে হয়। এবং প্রায় ৫৫০০০ কিলোমিটার পথ তাদের উরে বেড়াতে হয়। 

আধা চামচঃ একটি মৌমাছি তার সারাজীবনে মাত্র আধা চামচ এর মত মধু উৎপাদন করতে পারে। 

ফ্রিজঃ খাঁটি মধু ফ্রিজে রাখলেও  জমেনা।( চাইলে পরীক্ষা করে দেখতে পারেন)। 

আরও অনেক মজার ব্যপার আছে এই মধু নিয়ে, লেখা অনেক বড় হয়ে যাবে তাই বাদ দিলাম। 

আসুন আমরা এবার মধুর প্রকার ভেদ জানি। 

মধু মূলত ২ প্রকার এক চাষ করা আরেক প্রাকৃতিক বা বুনো মধু। প্রকার ভেদে এই মধু ৪০০ থেকে ৩০০০ টাকা কেজি দরে বিক্রয় হয়। বিদেশি মধুর দাম আরও বেশি। 

চাষের মধু নানা রকম হয় তার উৎপত্তি স্থানের উপর নির্ভর করে। যেমন, কালিজিরা মধু, সরিশা মধু, লিছু মধু, ধনিয়া মধু ইত্যাদি । এই সবের মাঝে অবশ্য কালিজিরা মধুর গুনাগুন এবং কার্যকারিতা সবচে বেশি বলে মধু ব্যবসায়ী দের মতামত। 

তবে বাংলাদেশের বাহিরে বিভিন্ন রকম ফুলের মধু পাওয়া যায়। 

বুনো মধুর জাত সমন্ধে বলে শেষ করা মুশকিল। সুন্দরবনের মধু, পাহাড়ি মধু এমনকি আপনার বাড়ীর বাগানে বাসা বাঁধা মধুর চাক থেকেও কিন্তু বুনো মধু বা প্রাকৃতিক মধু সংগ্রহ করা সম্ভব। 

ইসলামের দৃষ্টি তে মধুঃ

সহিহ বুখারি হাদিস অনুযায়ী হুজুর পাক হজরত মোহাম্মাদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম এর নিজ মুখে বর্ণিত যে “তোমরা মধুর উপর জোর দান কর কেননা ইহার মাঝে সকল প্রকার রোগের শেফা আছে”।

সর্বকালের সর্ব  শ্রেষ্ঠ মানবের মুখের কথা, বুঝতে হবে। 

বিজ্ঞান কি বলে?

ডক্টর এবং বিজ্ঞানী রা সারা পৃথিবী তে, মধুর ঔষধি আর খাদ্য গুণের কথা শিকার করেছেন। প্রাচীন এবং সদ্য উদ্ভাবিত সকল শাস্ত্রের চিকিৎসা বিজ্ঞানে মধুর ব্যবহার এর উল্লেখ রয়েছে। 

মধুর কিছু অধিক প্রচলিত ব্যবহার এর কথা বলি। 

  • ওজন কন্ট্রোল করতে।
  • শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে। 
  • ত্বক এবং মুখের যত্নে। 
  • সৃতি শাক্তি বাড়াতে। 
  • কফ নিরাময় করতে।
  • জখম ভাল করতে।
  • একজিমা দূর করতে।

আরও কত নানা বিধ কাজে এই মধু যে ব্যবহার হয় টা বলে শেষ করা মুশকিল। 

শিয়াল মতঃ

শিয়াল পণ্ডিত মধু খুব পছন্দ করেন । সবসময় মধু খান এবং ব্যবহার করেন। 

প্রকৃতির এই দারুন উপহার টি উনি সওদাগর.কম থেকে কিনে খান। 

শিক্ষা, তথ্য ও বিনোদন সব এক স্থানে পেতে আমাদের সাথে থাকুন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here